আজকের সর্বশেষ সবখবর

ব্যক্তিগত সুরক্ষা আইনটি নাগরিকের স্বাধীন মতপ্রকাশের অধিকার হরণ করার একটি চক্রান্ত: বিএনপির মহাসচিব

দৈনিক স্বরবর্ণ
সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১ ৬:৩৩ অপরাহ্ণ
পঠিত: 205 বার
Link Copied!

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রস্তাবিত ব্যক্তিগত সুরক্ষা আইনটি নাগরিকের স্বাধীন মতপ্রকাশের অধিকার হরণ করার একটি চক্রান্ত। এ আইন গণতন্ত্রের জন্য একটি বড় হুমকি হয়ে দাঁড়াবে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সভার সিদ্ধান্তে এ কথা বলা হয়েছে বলে জানান বিএনপির মহাসচিব।

রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আজ রোববার বেলা তিনটার দিকে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘সভা মনে করে, এ ধরনের আইন ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষার কথা বলে নাগরিকের স্বাধীন মতপ্রকাশের অধিকার হরণ করার একটি চক্রান্ত। এ আইন গণতন্ত্রের জন্য একটি বড় হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। জনগণের ব্যক্তিগত অধিকার ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা অক্ষুণ্ন রাখার জন্য আহ্বান জানানো হয়।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, প্রস্তাবিত ব্যক্তিগত সুরক্ষা আইনের খসড়া সরকারি ওয়েবসাইটে প্রকাশে গভীর উদ্বেগের কথা জানান। গতকাল আবার এটি ওয়েবসাইট থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে।

মির্জা ফখরুল জানান, গতকাল শনিবার দলটির স্থায়ী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে। এর সভাপতিত্বে করেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। সভায় আলোচ্যসূচির ওপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ সভায় ১১ সেপ্টেম্বর হওয়া সভায় নেওয়া সিদ্ধান্তগুলো পাঠ করা এবং অনুমোদন দেওয়া হয়।
বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি মুক্তিযুদ্ধ, ১৯৭৫–এর পটপরিবর্তন, জিয়াউর রহমানের সমাধি নিয়ে যে লাগাতার মিথ্যাচার করেছেন, এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানানো হয়। সভা মনে করে, জনগণকে বিভ্রান্ত করতে অবৈধ ও মিথ্যা তথ্য সংসদের প্রস্তাব করে তিনি (শেখ হাসিনা) মূলত জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার পুনরুদ্ধারের আন্দোলনকে দৃষ্টির আড়ালে রাখার ষড়যন্ত্র করছেন। মির্জা ফখরুল বলেন, ইতিহাস বিকৃত করে জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করা হচ্ছে। বীর উত্তম জিয়াউর রহমানের বিরুদ্ধে এ ধরনের বিকৃত অপপ্রচার স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে চক্রান্ত ছাড়া আর কিছু নয়। এ ধরনের মিথ্যাচার থেকে বিরত থাকার আহ্বান সভা থেকে জানানো হয়।

মির্জা ফখরুল বলেন, সংসদে ভাড়াভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র চালু রাখার প্রণীত বিশেষ আইনের মেয়াদ আরও পাঁচ বছর বাড়িয়ে বিল পাস করায় তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানানো হয় বিএনপির সভায়।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।