ঢাকারবিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, দুপুর ১:৩৯
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফ্লাইট গভীর রাতে, স্বজনদের নিয়ে ১০ ঘন্টা আগে হাজির হতে হয়েছে

লিংকন
অক্টোবর ৮, ২০২১ ৩:০৮ অপরাহ্ণ
পঠিত: 188 বার
Link Copied!

প্রবাসী শ্রমিক গিয়াস খানের সঙ্গে পাবনা থেকে তাঁর স্ত্রী সীমা বেগম আর তিন বছরের মেয়েটাও এসেছে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। শখ করে মেয়েকে ‘রাজকুমারী’র পোশাক পরিয়েছিলেন মা–বাবা। বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে বিমানবন্দরের টার্মিনালের বাইরে শিশুটি পরনে দেখা গেল সাদা গেঞ্জি; সীমা ঘামছেন দরদর করে। সংযুক্ত আরব আমিরাতগামী গিয়াস তখন বিমানবন্দরের ভেতরে ঢুকেছেন করোনা পরীক্ষা করাতে।

সীমা বলেন, ‘রাত দেড়টায় উনার (গিয়াস খান) ফ্লাইট। করোনা পরীক্ষার ফলাফল হাতে পেলে উনি বের হয়ে আসবেন। তারপর আমরা চলে যাব।’ করোনা পরীক্ষায় ছয় ঘণ্টা সময় লাগবে। এরপর স্ত্রী–সন্তানকে বিদায় জানিয়ে প্লেনে উঠবেন গিয়াস। ততক্ষণ পর্যন্ত টার্মিনালের বাইরে মেঝেতে মেয়েকে কোলে নিয়ে বসে থাকবেন সীমা। বললেন, এত গরম যে মেয়েকে পরানো শখের পোশাক খুলে ফেলতে হয়েছে।

বিমানবন্দরে সংযুক্ত আরব আমিরাতগামী বেশ কয়েকজন অভিবাসী শ্রমিকের সঙ্গে কথা হয়। তাঁরা বলেন, প্লেন ছাড়ার অন্তত নয় ঘণ্টা আগে তাঁদের বিমানবন্দরে আসতে হচ্ছে। প্রস্তুতিতে সময় লাগছে ২৪ ঘণ্টারও বেশি। কেউ কেউ বাড়ি থেকে রওনা দিয়েছেন মধ্যরাতে, কেউ আবার এক দিন আগে। অনেকেরই ঢাকায় আত্মীয়স্বজন নেই। তাঁদের উঠতে হয়েছে হোটেলে।
বিমানবন্দরের এক নম্বর টার্মিনালের কাছে গাট্টি–বোঁচকা হাতে দাঁড়িয়েছিলেন মো. শহীদ। না ঘুমানোয় চোখ দুটো তাঁর লাল। বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার ফ্লাইট ধরতে বিমানবন্দরে ঢুকেছেন বেলা ১২টায়। ময়মনসিংহের চুরখাই থেকে রওনা দিয়েছেন বুধবার রাত ৩টার দিকে।
শহীদ প্রথম আলোকে বলেন, সকালে ঢাকায় পৌঁছে আর্মি স্টেডিয়ামের কাছে একটি হাসপাতালে গিয়ে প্রথমে করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন। ফ্লাইট ছাড়ার ১২ ঘণ্টা আগে টিকিট বাতিল করা যায়। তাই আগে বাইরে একটা পরীক্ষা করিয়ে ফলাফল হাতে তাঁরা বিমানবন্দরে ঢুকছেন।

দুপুর গড়িয়ে যাচ্ছে, খাওয়া–দাওয়া করেছেন কিছু? শহীদ বললেন, ভোর রাতে এসে যেখানে নেমেছেন, তার আশপাশে ভাতের হোটেল ছিল না। রুটি–কলা খেয়েছেন।

টাইলস মিস্ত্রি মো. শরীফ গত ৫ মার্চ দেশে এসেছিলেন। ১২ বছর ধরে দুবাইতে কাজ করছেন। বাড়িতে মা ও অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে রেখে এসেছেন। তাঁকে বিদায় জানাতে এসেছেন ছোট ভাই মো. ফরিদ। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত টার্মিনালে অপেক্ষা করেছেন তিনিও। বড় ভাই করোনা নেগেটিভ ফলাফল হাতে নিয়ে বেরোনোর পর ফরিদ ময়মনসিংহের বাস ধরেন।

একই অবস্থা কুমিল্লার মো. নাঈম হাসান, নোয়াখালীর টিপু সুলতান ও শেখ জাহিদুন্নবীর। শেখ জাহিদুন্নবী বলেন, তিনি নোয়াখালী থেকে এসেছেন বুধবার সকালে। ঢাকায় কেউ নেই, হোটেলে উঠেছেন। সকালে আইসিডিডিআরবি–তে করোনা পরীক্ষা করিয়ে ফলাফল নিয়ে এসেছেন। তাঁর ফ্লাইট রাত দেড়টায়। শুধু বিমানবন্দরেই থাকতে হচ্ছে ১৩ ঘণ্টা। তাঁর প্রশ্ন, এই সময়টা কমানো যায় না?

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।