ঢাকারবিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, দুপুর ২:১২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম আমরা ব্যবহার করি, সেটা ‘ফেসবুক’ নামেই থাকছে

জয়িতা দাস
অক্টোবর ২৯, ২০২১ ৪:৪৬ অপরাহ্ণ
পঠিত: 124 বার
Link Copied!

ফেসবুকের নাম পরিবর্তনের খবরে অনেক পাঠক প্রশ্ন করেছেন, এত দিনের চেনা ফেসবুক কী তবে মেটা হয়ে যাবে? ব্যাপারটা তা নয়। ফেসবুকের করপোরেট নামে পরিবর্তন এসেছে। তবে যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম আমরা ব্যবহার করি, সেটা ‘ফেসবুক’ নামেই থাকছে।

নাম পরিবর্তনের এই ঘোষণা মার্ক জাকারবার্গ দিয়েছেন গতকাল বৃহস্পতিবার এক ভার্চ্যুয়াল সম্মেলনে। নতুন নামটি তাঁদের মেটাভার্স তৈরির লক্ষ্যের প্রতিফলন, মূল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সেবার নয় বলে জানান। সে সময় তিনি বলেন, ‘এখন আমাদের ব্র্যান্ড কেবল একটি পণ্যের সঙ্গে এমনভাবে সম্পৃক্ত যে তা হয়তো আমরা এখন যা করছি, তারই পুরোটা উপস্থাপন করতে পারছে না, ভবিষ্যতের কথা বাদই দিলাম।’

এখানে বলে রাখা ভালো, জাকারবার্গদের তৈরি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সেবাটির নাম ‘ফেসবুক’, যেটা আমরা ব্যবহার করে সবার সঙ্গে যোগাযোগ রাখি। আর যে প্রতিষ্ঠান সে সেবা পরিচালনা করে, সেটির নাম এত দিন ছিল ‘ফেসবুক ইনকরপোরেটেড’। এই প্রতিষ্ঠানের অন্য সেবাগুলোর মধ্য রয়েছে ইনস্টাগ্রাম, মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ, অকুলাস, পোর্টাল, ওয়ার্কপ্লেস ইত্যাদি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সেবা এবং মূল প্রতিষ্ঠানের নাম এক হয়ে যাওয়ায় মানুষ মূল প্রতিষ্ঠানের কাজের পরিসর সম্পর্কে পূর্ণ ধারণা পাচ্ছিল না বলে মনে করেন জাকারবার্গ। আর সে কারণেই গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম সেবার নাম ‘ফেসবুক’ রেখে মূল প্রতিষ্ঠানের নাম বদলে ‘মেটা’ করা হয়েছে বলে লাইভ ভিডিওতে তিনি জানান।

তবে আগামী এক দশকে ফেসবুককে ক্রমে মেটাভার্সের ভার্চ্যুয়াল দুনিয়ায় রূপান্তরের স্বপ্নের কথা বলেছেন মার্ক জাকারবার্গ। যেখানে ব্যবহারকারীরা আভাটার বা হলোগ্রাম প্রযুক্তির মাধ্যমে যুক্ত হয়ে কথোপকথন চালাতে পারবেন। আর সে কাজে ১০ হাজার নতুন কর্মী এবং প্রথম বছরেই অন্তত এক হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছেন।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।