আজকের সর্বশেষ সবখবর

আজ বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস

দৈনিক স্বরবর্ণ
নভেম্বর ১৪, ২০২১ ২:২০ অপরাহ্ণ
পঠিত: 153 বার
Link Copied!

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ইনসুলিনের উচ্চমূল্য, অপর্যাপ্ততা, দুর্বল স্বাস্থ্যব্যবস্থা ও একচেটিয়া ব্যবসা জীবনদায়ী এ ওষুধের সর্বজনীন প্রাপ্যতার পথে বাধা হয়ে আছে। আবিষ্কারের ১০০ বছর পরও ডায়াবেটিসে আক্রান্ত বহু মানুষ ইনসুলিন পাচ্ছে না।
‘১০০ বছর পুরোনো প্রতিশ্রুতি রক্ষা করুন–ইনসুলিন প্রাপ্যতা সর্বজনীন করুন’ শিরোনামের প্রতিবেদনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এসব কথা বলেছে।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে ১২ নভেম্বর এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। আজ রোববার (১৪ নভেম্বর) বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস।
ডায়াবেটিস চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ওষুধ ইনসুলিন। বিশ্বে প্রায় ৯০ লাখ টাইপ-১ ডায়াবেটিস রোগী আছে। ইনসুলিন না পেলে রোগটি তাদের কাছে মৃত্যুর সমান। ইনসুলিন রোগকে ব্যবস্থাপনার পর্যায়ে নিয়ে আসে।

অন্যদিকে, টাইপ-২ ডায়াবেটিস আছে প্রায় ছয় কোটি মানুষের। তাদের কিডনি ও দৃষ্টিশক্তি ঠিক রাখতে ইনসুলিনের বড় ভূমিকা রয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, টাইপ-২ আক্রান্ত প্রতি দুজন রোগীর একজনের ইনসুলিন দরকার হয়, কিন্তু তা তারা পায় না।

নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশগুলোয় ডায়াবেটিসের প্রকোপ বাড়ছে, কিন্তু তার সঙ্গে সংগতি রেখে ইনসুলিনের ব্যবহার বাড়ছে না।

তিনটি বহুজাতিক কোম্পানি বিশ্বের ৯০ শতাংশ ইনসুলিনের বাজার নিয়ন্ত্রণ করে, তারা ছোট ছোট কোম্পানিকে ইনসুলিন বিক্রির সুযোগ দিতে চায় না।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস বলেছেন, ১০০ বছর আগে যাঁরা ইনসুলিন আবিষ্কার করেছিলেন, তাঁরা ওই আবিষ্কার থেকে মুনাফা করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন। তাঁরা মাত্র এক ডলারে মেধাস্বত্ব বিক্রি করেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, দুর্ভাগ্যবশত, সংহতির সেই সদিচ্ছা বহু কোটি ডলারের ব্যবসায় ঢাকা পড়ে গেছে এবং ইনসুলিন প্রাপ্তির ক্ষেত্রে পার্থক্য তৈরি করেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অপর্যাপ্ত আইন ও নীতি, ওষুধের মূল্য নির্ধারণে দুর্বলতা, দুর্বল ক্রয় ও সরবরাহব্যবস্থা, সর্বোপরি সুশাসনের ঘাটতির কারণে মানুষের কাছে ইনসুলিন সহজলভ্য হচ্ছে না।

ইনসুলিন নিয়ে গবেষণা যা হচ্ছে, তা মূলত ধনী বাজারগুলোকে মাথায় রেখে। নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোকে অবহেলা করা হচ্ছে অথচ ডায়াবেটিসের ৮০ শতাংশ বোঝা এসব দেশে।
প্রতিবেদনে অবশ্য পরিস্থিতির উন্নতির জন্য কিছু সুপারিশ করা হয়েছে। ইনসুলিনের মূল্য নির্ধারণে আইন তৈরি, স্থানীয় উৎপাদনব্যবস্থাকে শক্তিশালী করা, নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোর প্রয়োজন মাথায় রেখে গবেষণা ও উদ্ভাবন, রক্তে শর্করা পরিমাপ করাসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী সহজলভ্য করার কথা বলেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।