ঢাকাসোমবার, ৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সকাল ৮:১৮
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রহমত-মাগফিরাত-নাজাতের মাস রমজান

জয়ন্তিকা
এপ্রিল ২০, ২০২২ ৬:১২ অপরাহ্ণ
পঠিত: 52 বার
Link Copied!

রহমত-মাগফিরাত-নাজাতের মাস রমজান। তাকওয়ার মাস রমজান। কোরআন নাজিলের মাস রমজান। রমজানে একটি ফরজ—এক মাস রোজা রাখা; দুটি ওয়াজিব—সদকাতুল ফিতর প্রদান করা ও ঈদের নামাজ আদায় করা; পাঁচটি সুন্নত—সাহ্‌রি খাওয়া, ইফতার করা, তারাবিহ পড়া, কোরআন করিম তিলাওয়াত করা ও ইতিকাফ করা।

‘ইতিকাফ’ আরবি শব্দ। এর অর্থ হলো অবস্থান করা, আবদ্ধ করা, আবদ্ধ থাকা বা আবদ্ধ রাখা। পরিভাষায় ইতিকাফ হলো ইবাদতের উদ্দেশ্যে ইতিকাফের নিয়তে নিজেকে নির্দিষ্ট জায়গায় নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত আবদ্ধ রাখা। যিনি ইতিকাফ করেন, তাকে ‘মুতাকিফ’ বলে। দুনিয়ার সব আকর্ষণ থেকে মুক্ত হয়ে, সব মোহ-মায়া ত্যাগ করে, সব বাধা-বন্ধন উপেক্ষা করে একান্তভাবে আল্লাহ তাআলার সান্নিধ্যে যাওয়ার নাম ইতিকাফ। মসজিদের বিশেষ আমল হলো ইতিকাফ। আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘আমি ইব্রাহিম ও ইসমাইলকে আদেশ করলাম, তোমরা আমার গৃহকে তাওয়াফকারী, ইতিকাফকারী ও রুকু–সিজদাকারীদের জন্য পবিত্র রাখো।’(সুরা-২ বাকারা, আয়াত: ১২৫)

হজরত আয়েশা সিদ্দিকা (রা.) বর্ণনা করেন, ‘নবী করিম (সা.) আজীবন রমজান মাসের শেষ দশকগুলো ইতিকাফ করেছেন। তাঁর ওফাতের (আগে) পরেও তাঁর বিবিরা (ঘরে) ইতিকাফ করতেন।’ (বুখারি শরিফ ও মুসলিম শরিফ; আলফিয়্যাতুল হাদিস: ৫৪৬, পৃষ্ঠা: ১২৯)। হজরত উম্মে সালমা (রা.) বলেন, ‘নবীজি (সা.) তিনটি আমল জীবনে কখনো ছাড়েননি। সেগুলো হলো তাহাজ্জুদ নামাজ, আইয়ামে বিদের রোজা এবং রমজান মাসে ইতিকাফ। তিনি প্রতিবছর ১০দিন ইতিকাফ করতেন, শেষ বছর ২০ দিন ইতিকাফ করেছেন।’

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।