ঢাকাসোমবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ১১:৩৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রাজনীতির মাঠ

জয়ন্তিকা
নভেম্বর ৬, ২০২২ ৬:১৮ অপরাহ্ণ
পঠিত: 13 বার
Link Copied!

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রাজনীতির মাঠ। বিএনপির বিপুল জমায়েত নিয়ে সমাবেশের পাল্টায় আওয়ামী লীগও নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে নিজেদের শক্তি দেখাচ্ছে। এরই মধ্যে আগামী ২৪ ডিসেম্বর জাতীয় সম্মেলন আয়োজন করছে ক্ষমতাসীন দলটি। ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ওই সম্মেলনেই ঠিক হবে আগামী তিন বছরের জন্য কারা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দেবেন।

চার দশক ধরে আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই পদে দলের কাউন্সিলর-প্রতিনিধিরা এক বাক্যে মেনে নেন তাঁকে। দু-একবার নিজ থেকে অবসরে যাওয়ার প্রস্তাব তুললেও দলের নেতা-কর্মীরা শেখ হাসিনাকে ছুটি দিতে রাজি হননি। এ জন্য চার দশক ধরে মূল আকর্ষণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সাধারণ সম্পাদক পদটি। এবারও এর ব্যতিক্রম নয়।

আওয়ামী লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের টানা দুই মেয়াদে এই দায়িত্বে আছেন। এর আগে কোনো সাধারণ সম্পাদক টানা তিন মেয়াদে দায়িত্ব পালন করেননি। তাই এবার মূল আলোচনা ওবায়দুল কাদের কি বাদ যাচ্ছেন, নাকি তিনি হ্যাটট্রিক করছেন? এই আলোচনার মধ্যেও ভেতরে-ভেতরে এক ডজনের মতো নেতা সাধারণ সম্পাদক পদের দাবিদার হিসেবে নিজেদের উপস্থাপন করার চেষ্টা করছেন।

আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী সূত্র বলছে, সভাপতি হিসেবে শেখ হাসিনাই থাকছেন—এটা প্রায় নিশ্চিত। আর সাধারণ সম্পাদক ঠিক করেন সভাপতি নিজেই। এবার কে হতে পারেন সাধারণ সম্পাদক—এ বিষয়ে দলীয় সভাপতি এখন পর্যন্ত তাঁর মনোভাব প্রকাশ্যে বা ঘনিষ্ঠ নেতাদের কাছে প্রকাশ করেননি। সাধারণত তিনি জাতীয় সম্মেলনের তিন থেকে সাত দিন আগে বিষয়টি খোলাসা করেন। এবারও এমনটাই হওয়ার কথা।

আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এক বছর আগের এই সম্মেলনে ওবায়দুল কাদেরকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে রেখে দেওয়া এবং নতুন কাউকে নির্বাচন করা—এই দুটি সম্ভাবনা নিয়েই আলোচনা আছে। কেউ কেউ বলছেন, জাতীয় নির্বাচন ও বিরোধীদের আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে ওবায়দুল কাদেরকে রেখে দেওয়া হতে পারে। সাম্প্রতিক সময়ে সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে ওবায়দুল কাদেরের বাড়তি তৎপরতাও দেখা যাচ্ছে। নানা কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি বিএনপি নেতাদের অভিযোগের জবাব দিয়ে আসছেন। বিএনপির সঙ্গে আন্দোলন ও ভোটের মাঠে ‘খেলা হবে’ বলেও বলছেন তিনি। করোনা মহামারির মধ্যে দীর্ঘদিন দৃশ্যত বাইরে না আসা ওবায়দুল কাদেরের এই রাজনৈতিক তৎপরতা তাঁর অনুসারীদের আশা দেখাচ্ছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।